Posts

প্রেমিক কবি

জান শারদীয়া?
কবিরা একটু উন্মাদ হয়
কবিদের কোন দেশ-কাল জ্ঞান থাকেনা
কবিরা ঘর ছাড়া হয়
কবিদের সংসার থাকে না
কবিদের ভাত চুলায় পুড়ে যায়
কবিদের পাকস্থলী থাকে না
কবিদের টাকা পয়সা আকাশে উড়ে বেড়ায় ।
কবিরা একটু অসুস্থ হয়, হৃদয়ের অসুখ ।
কবিদের অসুখের কোন চিকিৎসা হয়না ।
কবিরা প্রেমিক হয়,
যৌবনের প্রেমিক
প্রেমের প্রেমিক
উন্মাদনার প্রেমিক ।
কবিরা ঠিক জানেনা তারা কেন কবি হয় ।



অন্তঃশীল

সুদিনের আশায় তুমি, ছেড়েছ আপন দেশ
মনের আকাশ মেঘলা ছিল, ছিল ভীরু বিদ্বেষ।
নয়নে অশ্রু ছিল, নয়ন ছিল আড়ালে
বিষাদে মন ভারী ছিল, ঢেকেছি হাসির ছলে।
শ্বাস-প্রশ্বাস ছিল রুদ্ধপ্রায়, গঙ্গাপ্রাপ্তির কাছাকাছি
সংকটাপন্ন চিত্তে এখনো, বিরহের প্রহর গুনছি ।


আমরা কেন কপি করি ?

Image
১। ছোট বেলা থেকেই আমাদের ক্রিয়েটিভিটি থেকে কপি কে বেশী মূল্যায়ন দেয়া হয়। পরীক্ষায় একটা রচনা বা ভাব-সম্প্রসারণ লিখলে যারটা বইয়ের মত হয়েছে বা বইয়ের যত কাছাকাছি গেছে তার নম্বর তত বেশী। পক্ষান্তরে, যে খুব চিন্তা করে নিজে থেকে কিছু লিখার চেষ্টা করল তারটা তো আর বইয়ের মত হবেনা। তাই সে নম্বর ও হয়ত একটু কম পাবে । তাই ভাল নম্বরের জন্য আমার কপিটাই ভাল। চিন্তাও কম নম্বরও বেশী।
২। আমারা ক্রিয়েটিভ কাজের মূল্য দেইনা। আসলে আমরা মূল্য দিতে জানিনা। ইন্টালেকচুয়াল প্রপার্টির যে দাম থাকতে পারে তা আমাদের কে শেখানো হয়নি। যেমন, আমরা যখন সংবাদপত্র  বা একটা বই কিনি তখন আমরা শুধু চিন্তা করি,  কাগজ+ছাপার খরচ = বইয়ের দাম । কিন্তু বইয়ের আসল দাম যে বইয়ের লেখার পিছনে মেধা আর শ্রম সেটা ভাবার রীতি আমাদের সমাজে নেই।
৩। আমরা সব কিছুতেই শর্টকাট খুজি ।  " অল্প পুঁজি বেশী রুজি " আমাদের মনে গেঁথে গেছে। আমরা সময় দিতে নারাজ । কষ্ট করে গবেষণা করে কোন কিছু করতে ভাল লাগে না। তাই কিছু না করার চেয়ে  কপি করে যদি কিছু রুজি হয় তাহলে খারাপ কি । এই মানসিকতা থেকে কপি জিনিসটা চলে আসে।
৪। শিল্পীর শিল্পকে টাকা দিয়ে মূল্যায়ন কপি…

অ্যান্ড্রয়েড এডমব এ যা যা করবেন এবং করবেন না

Image
এন্ড্রয়েড অ্যাপ থেকে আয় করার একটা ভালো পদ্ধতি হচ্ছে এডমব যুক্ত করা করা।  ইতিমধ্যে আপনারা জেনে গেছেন কিভাবে অ্যাপ এ এডমব যুক্ত করতে হয়। যারা এখনো করেন নি কিন্তু করতে চান তারা এখান  থেকে এডমব যুক্ত করা সম্পর্কে জানতে পারবেন। অনেক অজানা কারনেই আপনার এডমব অ্যাকাউন্ট বন্ধ(নিষিদ্ধ) হয়ে যেতে পারে। কিছু কাজ করলে এবং কিছু কাজ করা এড়িয়ে চললে এরকম অনাকাঙ্খিত অ্যাকাউন্ট বন্ধ(নিষিদ্ধ) হওয়া থেকে বাঁচা যায়। এখানে সে গুলো নিয়েই আলোচনা করা হল-
করণীয় নয়ঃ অযথা ক্লিক বা কারো দ্বারা ক্লিক করানো থেকে বিরত থাকুন। আপনি হয়ত ভাবছেন আমিতো ক্লিক করিনি, এমন মানুষ দিয়ে ক্লিক করিয়েছি কেউ কোনদিন টের পাবেনা। এরকম ভুলেও ভাববেন না। আপনি যে ভাবেই ফ্রড করেন না কেন গুগল জানতে পারবে এবং আপনার অ্যাকাউন্ট ব্লক হয়ে যাবে। তাই ছোটখাটো লাভের আশায় কোন প্রকার ফ্রড করবেন না। করণীয়ঃ নিজে এবং পরিচিত দের ক্লিক থেকে দূরে থাকুন। নিজের নিরাপত্তার জন্য আপনার অ্যাপ সম্পর্কিত গোপনীয়তা রক্ষা করতে পারেন।
করণীয় নয়ঃ এমন ভাবে বিজ্ঞাপন দিবেন না যাতে আপনার অ্যাপ বিজ্ঞাপনের নিচে ঢাকা পড়ে যায় অথবা আপনার বিজ্ঞাপন ব্যবহারকারীর বিরক্তির কারন হয়ে দাঁড়ায়। ক…