Sunday, July 30, 2017

প্রেমিক কবি

জান শারদীয়া?
কবিরা একটু উন্মাদ হয়
কবিদের কোন দেশ-কাল জ্ঞান থাকেনা
কবিরা ঘর ছাড়া হয়
কবিদের সংসার থাকে না
কবিদের ভাত চুলায় পুড়ে যায়
কবিদের পাকস্থলী থাকে না
কবিদের টাকা পয়সা আকাশে উড়ে বেড়ায় ।
কবিরা একটু অসুস্থ হয়, হৃদয়ের অসুখ ।
কবিদের অসুখের কোন চিকিৎসা হয়না ।
কবিরা প্রেমিক হয়,
যৌবনের প্রেমিক
প্রেমের প্রেমিক
উন্মাদনার প্রেমিক ।
কবিরা ঠিক জানেনা তারা কেন কবি হয় ।



Sunday, September 25, 2016

অন্তঃশীল

সুদিনের আশায় তুমি, ছেড়েছ আপন দেশ
মনের আকাশ মেঘলা ছিল, ছিল ভীরু বিদ্বেষ।
নয়নে অশ্রু ছিল, নয়ন ছিল আড়ালে
বিষাদে মন ভারী ছিল, ঢেকেছি হাসির ছলে।
শ্বাস-প্রশ্বাস ছিল রুদ্ধপ্রায়, গঙ্গাপ্রাপ্তির কাছাকাছি
সংকটাপন্ন চিত্তে এখনো, বিরহের প্রহর গুনছি ।


Wednesday, May 4, 2016

আমরা কেন কপি করি ?


১। ছোট বেলা থেকেই আমাদের ক্রিয়েটিভিটি থেকে কপি কে বেশী মূল্যায়ন দেয়া হয়। পরীক্ষায় একটা রচনা বা ভাব-সম্প্রসারণ লিখলে যারটা বইয়ের মত হয়েছে বা বইয়ের যত কাছাকাছি গেছে তার নম্বর তত বেশী। পক্ষান্তরে, যে খুব চিন্তা করে নিজে থেকে কিছু লিখার চেষ্টা করল তারটা তো আর বইয়ের মত হবেনা। তাই সে নম্বর ও হয়ত একটু কম পাবে । তাই ভাল নম্বরের জন্য আমার কপিটাই ভাল। চিন্তাও কম নম্বরও বেশী।

২। আমারা ক্রিয়েটিভ কাজের মূল্য দেইনা। আসলে আমরা মূল্য দিতে জানিনা। ইন্টালেকচুয়াল প্রপার্টির যে দাম থাকতে পারে তা আমাদের কে শেখানো হয়নি। যেমন, আমরা যখন সংবাদপত্র  বা একটা বই কিনি তখন আমরা শুধু চিন্তা করি,  কাগজ+ছাপার খরচ = বইয়ের দাম । কিন্তু বইয়ের আসল দাম যে বইয়ের লেখার পিছনে মেধা আর শ্রম সেটা ভাবার রীতি আমাদের সমাজে নেই।

৩। আমরা সব কিছুতেই শর্টকাট খুজি ।  " অল্প পুঁজি বেশী রুজি " আমাদের মনে গেঁথে গেছে। আমরা সময় দিতে নারাজ । কষ্ট করে গবেষণা করে কোন কিছু করতে ভাল লাগে না। তাই কিছু না করার চেয়ে  কপি করে যদি কিছু রুজি হয় তাহলে খারাপ কি । এই মানসিকতা থেকে কপি জিনিসটা চলে আসে।

৪। শিল্পীর শিল্পকে টাকা দিয়ে মূল্যায়ন কপির আর একটি কারন । যেমন, করিমের মিউজিক ভিডিও ১০ কোটি টাকা আয় করছে আর রহিমের টা পাঁচ হাজার টাকা আয় করছে। তাহলে নিঃসন্দেহে করিমের মিউজিক ভিডিও ভাল। এই ধরনের ভুল  ধারনা আমাদের কে কপি করতে উৎসাহিত করে। কারন কপি করলেও আমার টাকা তো আসবেই।

৫। নৈতিক শিক্ষার অভাব । কপি করা যে খারাপ, কপি করলে কিভাবে ধীরে ধীরে দেশ পিছিয়ে পরে তা আমাদেরকে কেউ শিক্ষা দেয়না ।

৬। বিদেশী জিনিস পত্রের প্রতি অঘাত বিশ্বাস, আস্থা  আর ভালবাসা কপির আর একটি কারন । কারন দেশী মুরগীটা ছাড়া আর সবই বিদেশীটা ভাল এটা আমাদের মনে ঢুকে গেছে । তাই আমরা নিজেরা নিজের দেশে পণ্য বানিয়ে "Made in China" লিখতে ভুল করিনা।

৭। কপি করলে কোন শাস্তির ব্যবস্থা নেই (কপিরাইট কঠুর ভাবে মেইন্টেইন না করা )।  যারা কপি করে এরা যে  ভাল লোক নহে এবং এরা যে দেশ ও সমাজের শত্ররু সেকথা কেউ বলেনা । তাই আমি নিশ্চিন্ত মনে কপির ব্যবসা চালিয়ে যাই।

বি.দ্র: এতো কিছু সত্ত্বেও কিছু মানুষ খ্যতি আর  অর্থের লোভ থেকে নিজেকে বিরত রেখে  নীরবে ক্রিয়েটিভ আর কপি বর্জিত কাজ করে যাচ্ছে ।  আমরা যদি তাদের কাজের একটু মূল্যায়ন দেই তাহলে সেই মানুষ গুলো হয়ত দ্বিগুণ উৎসাহ নিয়ে  কাজ করবে । হয়ত আপনার-আমার করা একটু প্রশংসা তাদেরকে কপি থেকে বিরত থেকে কাজ করার প্রেরণা যোগায় ।

Friday, April 29, 2016

অ্যান্ড্রয়েড এডমব এ যা যা করবেন এবং করবেন না


এন্ড্রয়েড অ্যাপ থেকে আয় করার একটা ভালো পদ্ধতি হচ্ছে এডমব যুক্ত করা করা।  ইতিমধ্যে আপনারা জেনে গেছেন কিভাবে অ্যাপ এ এডমব যুক্ত করতে হয়। যারা এখনো করেন নি কিন্তু করতে চান তারা এখান  থেকে এডমব যুক্ত করা সম্পর্কে জানতে পারবেন।
অনেক অজানা কারনেই আপনার এডমব অ্যাকাউন্ট বন্ধ(নিষিদ্ধ) হয়ে যেতে পারে। কিছু কাজ করলে এবং কিছু কাজ করা এড়িয়ে চললে এরকম অনাকাঙ্খিত অ্যাকাউন্ট বন্ধ(নিষিদ্ধ) হওয়া থেকে বাঁচা যায়। এখানে সে গুলো নিয়েই আলোচনা করা হল-

করণীয় নয়ঃ অযথা ক্লিক বা কারো দ্বারা ক্লিক করানো থেকে বিরত থাকুন। আপনি হয়ত ভাবছেন আমিতো ক্লিক করিনি, এমন মানুষ দিয়ে ক্লিক করিয়েছি কেউ কোনদিন টের পাবেনা। এরকম ভুলেও ভাববেন না। আপনি যে ভাবেই ফ্রড করেন না কেন গুগল জানতে পারবে এবং আপনার অ্যাকাউন্ট ব্লক হয়ে যাবে। তাই ছোটখাটো লাভের আশায় কোন প্রকার ফ্রড করবেন না।
করণীয়ঃ নিজে এবং পরিচিত দের ক্লিক থেকে দূরে থাকুন। নিজের নিরাপত্তার জন্য আপনার অ্যাপ সম্পর্কিত গোপনীয়তা রক্ষা করতে পারেন।

করণীয় নয়ঃ এমন ভাবে বিজ্ঞাপন দিবেন না যাতে আপনার অ্যাপ বিজ্ঞাপনের নিচে ঢাকা পড়ে যায় অথবা আপনার বিজ্ঞাপন ব্যবহারকারীর বিরক্তির কারন হয়ে দাঁড়ায়।
করণীয়ঃ এমন পজিশনে বিজ্ঞাপন দিন যাতে ব্যবহারকারীর চোখে পড়বে কিন্তু বিরিক্তিকর হবেনা।

করণীয় নয়ঃ অ্যাপ এর মধ্যে ব্যবহারকারীর অনিচ্ছা সত্ত্বেও ক্লিক পড়ে যায় এমন জায়গায় বিজ্ঞাপন দেখানো যাবেনা। যেমনঃ আপনি এমন জায়গায় বিজ্ঞাপন দিলেন যেখানে ব্যবহারকারীর ক্লিক করতেই হবে নতুবা অ্যাপ চালাতে পারবেনা।
করণীয়ঃ নিরাপদ স্থানে বিজ্ঞাপন দিন। 

করণীয় নয়ঃ ব্যবহারকারীকে কখনোই ভয় দেখানো বা শাসান যাবেনা। যেমনঃ তুমি যদি এখানে ক্লিক না কর তোমার ফোনের মারাত্নক ক্ষতি হয়ে যাবে অথবা তুমি যদি এখানে ক্লিক না কর তোমার ফোন ভাইরাস ধ্বংস করে দেবে ইত্যাদি।
করণীয়ঃ আপনি যেটা করতে পারেন সেটা হল এমন যে,  আপনি এখানে ক্লিক করে কিছু ফি দিয়ে অ্যাপ আপগ্রেড করতে পারবেন।

করণীয় নয়ঃ  মিথ্যা কোন কিছুর আশ্বাস দেয়া যাবেনা। যেমনঃ  এখানে ক্লিক করলে একটা একটা ল্যাপটপ উপহার পাবে অথবা ফ্রি ডাউনলোড করতে পারবে ইত্যাদি।
করণীয়ঃ ফ্রি ইবুক, লটারি ইত্যাদি পরিহার করাই ভাল।

করণীয় নয়ঃ অ্যাপ এর সাথে সংশ্লিষ্ট নয় এমন বিজ্ঞাপন দেখানো যাবেনা। যেমনঃ আপনার অ্যাপ হচ্ছে খেলা বিষয়ক কিন্তু আপনি বিজ্ঞাপন দেখাচ্ছেন ব্যাঙ্ক বা ইনসিওরেন্স সম্পর্কিত ইত্যাদি।
করণীয়ঃ যথাসম্ভব সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞাপন দেখান।

করণীয় নয়ঃ লোকাল বিজ্ঞাপন ইন্টারন্যাশনালি দেখানো। যেমনঃ আপনি এমন কোন বিজ্ঞাপন দেখালেন যেটা আসলে আমাদের দেশের জন্য প্রযোজ্য কিন্তু কানাডা তে প্রচলিত নয় কিংবা কানাডাতে প্রযোজ্য কিন্তু বাংলাদেশে প্রযোজ্য নয়।
করণীয়ঃ ব্যবহারকারী বুঝে বা স্থান, কাল, পাত্র বুঝে বিজ্ঞাপন দেখান।

করণীয় নয়ঃ ব্যবহারকারী যদি প্রাপ্তবয়স্ক না হয় সেক্ষেত্রে কোনভাবেই প্রাপ্তবয়স্কদের বিজ্ঞাপন দেখানো যাবেনা। যেমনঃ বাচ্চাদের গেইমে কখনোই  প্রাপ্তবয়স্কদের ব্যবহার্য জিনিস পত্রের বিজ্ঞাপন দেখানো যাবেনা।
করণীয়ঃ ব্যবহারকারীর বয়স বুঝে বিজ্ঞাপন দিন।

এডমব এ এড  দেখানোর ব্যপারে খুব ই সতর্ক থাকুন। কেননা আপনার একটি ভুল শুধু আপনার একটি অ্যাপ ই নয় বরং অ্যাকাউন্ট ই বন্ধ করে দিতে পারে। এডমব এর পলিসি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন এই লিঙ্ক থেকে।
© আজীবনের জন্য আনিসুজ্জামান বাবলা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত. Powered by Blogger.